Text size A A A
Color C C C C
পাতা

সিটিজেন চার্টার

 

ক্র: নং

সেবার নাম

উদ্দেশ্য

সেবা প্রদানের সময়

ঋণের পরিমাণ ও মেয়াদ। প্রশিক্ষণের মেয়া

সেবার ধরণ

ঋণ গ্রহণ ও ট্রেডে ভর্তির নিয়মাবলী

দেয় আর্থিক সেবা

ঋণ আদায়ের নিয়মাবলী

কর্মসূচীর সংক্ষিপ্ত সার

১০

মহিলাদের আত্ম কর্মসংস্থানের জন্য ক্ষুদ্র ঋণ কার্যক্রম।

১। দারিদ্র বিমোচন।

২। আর্থিক সংগতিহীন মহিলাদের আত্মকমংস্থানের সৃষ্টি করা।

বরাদ্দপ্রাপ্তি ও প্রয়োজনীয় অর্থ জমা হওয়ায় সবার সিদ্ধামত্ম অমেত্ম আবেদন প্রদান। অতপর: প্রাপ্তির ১৫ কর্ম দিবসের মধ্যে মঞ্জুর করা হয়।

১। ঋণের পরিমাণ জন প্রতি ৫,০০০/-

২য় বারে ১০,০০০/- টাকা

৩য় বার ১৫,০০০/- টাকা ।

২। মেয়াদ

১ বছর থেকে ২ বছর পর্যমত্ম।

৩। ২ মাস ৩ মাস গ্রেস প্রিয়ড।

ক্ষুদ্র ঋণ প্রদান

১। ঋণ গ্রহণ ইচ্ছুক মহিলাদের স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।

২। ভিটা বাড়ি থাকতে হবে।

৩। বয়স-১৮ থেকে ৫৫ হতে হবে।

৪। দু:স্থ, স্বামী পরিত্যাক্তা, বিধবা, অবিবাহিত ও অত্র দপ্তর থেকে প্রশিক্ষণ প্রাপ্তদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।

৫। নির্ধারিত ফর্ম অত্র দপ্তর থেকে সংগ্রহ করে আবেদন করতে হবে।

৬। ভোটার আইডি কার্ডের ফটোকপি দিতে হবে।

৭। ঋণ চুক্তি ১৫০ টাকার নন জুডিশিয়াল ষ্ট্যাম্পে করতে হবে।

৮। ঋণ গ্রহীতা ষ্ট্যাম্প খরচ বহন করবে।

৯। জামানত বিহিন প্রদত্ত ঋণ ক্ষুদ্র ঋণ হিসাবে গণ্য হবে।

ঋণ বাবদ অর্থ

১। ঋণ গ্রহণের ২ মাস পর ঋণের কিসিত্ম আদায় শুরু হবে।

২। গৃহীত ঋণের উপর ৫% সার্ভিস চার্জ গ্রহণ করা হবে। যার ৫০% মূলধন হিসাবে বাকী ৫০% নীতিমালা  ও ঋণ কমিটি সিদ্ধামেত্ম আদায় কার্য ও আনুসাঙ্গি কাজে ব্যয় করা যাবে।

১। আর্থিক সঙ্গতিহীন কর্মক্ষম মহিলাদের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডে অংশগ্রহণ ও তাদের আত্মনির্ভরশীল করার লক্ষ্যে সরকার ২০০৪ থেকে এ পর্যমত্ম বরাদ্দ

১৪,৯৩,৩৯৬.২১+

২,০০,০০০.০০+

২,৫০,০০০.০০

মোট = ১৯৪৩৩৯৬.২১ টাকা বরাদ্দ প্রদান করায় উপজেলা সকল ইউনিয়নে সর্বমোট ৬২১জনকে ঋণ সুবিধা প্রদান করা হয়েছে।

২। এই অর্থ ঘূর্ণায়মান পদ্ধতিতে পরিচালিত হচ্ছে।

৩। ঋণ গ্রহীতাদের কাছ থেকে ৫% সার্ভিস চার্জ নেয়া হচ্ছে।

 

  

 

ট্রেড কার্যক্রম

 বেকার ও দু:স্থ মহিলাদের কর্মক্ষম করে গড়ে তোলা।

১ম ব্যাচ সকাল ৯.৩০ মি. থেকে বেলা ১২.৩০ মি. পর্যমত্ম।

২য় ব্যাচ

দুপুর ১.৩০ মি. থেকে ৪.৩০ মি. পর্যমত্ম।

৪ মাচ

১। সেলাই প্রশিক্ষণ

২। এ্যামব্রয়ডারী (হসত্ম) 

১। ভর্তির জন্য অত্র দপ্তর থেকে আবেদন ফরম গ্রহণ করতে হবে।

২। ২ কপি ছবি সত্যায়িত।

৩। শিক্ষাগত যোগ্যতার সত্যায়িত সনদপত্র।

৪। স্থানীয় ইউপি/পৌরসভা কর্তৃক নাগরিকত্ব সনদপত্রের কপি। 

১। ভর্তি ফি বা বেতন নেয়া হয় না।

২। হাজিরার ভিত্তিতে দৈনিক ২০/- ভাতা দেয়া হয়। 

 

১। মহিলাদের দক্ষতা উন্নয়নের জন্য সেলাই ও এ্যামব্রয়ডারী (হসত্ম) কার্যক্রমের প্রশিক্ষণ দেয়া হয়।

২। কোর্স মেয়াদ ৪ মাস। প্রতি কর্ম দিবসে ২টি ব্যাচে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়।

৩। ভর্তি ফি বা বেতন নেয়া হয় না।

৪। দৈনিক ২০/- হাজিরা ভাতা দেয়া হয়।

উঠান বৈঠক

মহিলাদের আত্ম সচেতনতাবোধ জাগিয়ে তোলা

আত্ম উন্নতির জন্য আত্মবিশ্বাসী করে গরে তোলা।

প্রতি মাসে ১দিন একটি গ্রামে একটি নির্দিষ্ট বাড়ীতে।

বিকাল ২-৩ ঘণ্টা সময়

 যৌতুক, নারী নির্যাতন, নারী পাচার রোধ, বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ, পরিবার পরিকল্পনা বিষয়ে আলোচনা।

 

 

 

শিক্ষিত, অর্ধশিক্ষিত, অশিক্ষিত, ধনি,দরিদ্র, সকল শ্রেণী পেশায় নিয়োজিত মানুষের মধ্যে যৌতুক, নারী নির্যাতনের মরণ ব্যধি আষ্টে পৃষ্ঠে জড়িয়ে গেছে। দরিদ্র শ্রেণীর শিশু, নারী অর্থের লোভে পাচার হচ্ছে। অভাব, অনটন এবং সামাজিক কুসংস্কারের কারণে বাল্য বিবাহ বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই এ সব থেকে নিস্কৃতি পেতে মহিলাদের আত্ম সচেতনাবোধ জাগিয়ে তোলা ও আত্ম উন্নতির জন্য আত্ম বিশ্বাসী করে গড়ে তোলার জন্য জাতীয় মহিলা সংস্থার মাধ্যমে উঠান বৈঠক করা হচ্ছে।

সমাপ্ত গ্রমাীণ মহিলা উন্নয়ন প্রকল্পের অফিস ও মাঠ পর্যায়ে সকল কার্যাদী যথা নিয়মে যথাযথ ভাবে সম্পন্ন করা হচ্ছে।